Green Bangla

Green Bangla Story

বাড়িওয়ালার রাগী মেয়ে

Bangla Love Story. Green Bangla Love Story.

পর্বঃ ৩

আমি তোমাকে ভালোবাসি আদিবা??

আদিবাঃ ধুর সব সময় ফাইজলামি ভালো লাগে না

-- আমি ফাইজলামি করছি না।। আমি সত্তিই তোমাকে ভালোবাসি।।

আদিবাঃ ধুরর।  তুই যা তো এখান থেকে ।। 

--- আমার উত্তরটা।

আদিবাঃ কোনো উত্তর নাই।। তুই যাবি এখন।।

-- আরে রাগ করছো কেনো?? যাচ্ছি তো।।

সেখান থেকে বন্ধুদের কাছে চলে আসলাম।

রাব্বিঃ ডোস্ত ট্রিট দেও।। কাজ তো হয়ে গেলো।।

--- কোনো কাজ হয় নাই।। ও মনে হয় আমাকে ভালোবাসে না।।

সাকিবঃ তুই কিভাবে বুজলি??

--- আরে ওকে প্রপোজ করলাম কিন্তু ওর তো মনে হয় কোনো অনুভূতিই হলো না।।

রাব্বিঃ আরে চিন্তা করিস না।। তুই তো ওকে বলেছিস।। এটাই অনেক।।

সাকিবঃ আর দেখবি ও তোকে ভালোবাসবে।

ক্লাস করে বাসায় চলে আসলাম।। আজকে ঠিক টাইমেই বাসায় আসলাম।। কোথাও আড্ডা দিলাম না ।।

মাঃ কিরে আজকে সূর্য কোন দিক থেকে উঠলো??

--- কেনো??  সবসময় যে দিক থেকে উঠে।।

মাঃ তা আমি জানি।। তা তুই আজকে কি মনে করে এই সময় বাসায় আসলি ।।

--- ভালো লাগছে না তাই।।

মাঃ তোর ও আবার ভালো লাগে না।। আচ্ছা যা ফ্রেশ হয়ে আয় আমি খাবার দিচ্ছি।।

--- আমার এখন ভালো লাগছে না।। পরে খাবো।।

মাঃ কি হয়েছে তোর??

-- কিছু হয় নাই।।

রুমে চলে এসে বিছানায় শুয়ে আসলাম।। ভাবতে থাকলাম জিবনে প্রথমবার কাউকে প্রপোজ করলাম।।
Green Bangla Love Story

কিন্তু যাকে করলাম সে এমন একটা ভাব করলো যেন কিছুই হয় নায়।।

ফেইসবুকেও ঢুকলাম না।। বিছানায় শুয়ে আছি।। কিছুখন পর জান্নাত আসলো।।

জান্নাতঃ মার কাছে কি শুনলাম ভাইয়া??

-- কি শুনেছিস??

জান্নাতঃ তুমি নাকি আজকে বাসায় তাড়াতাড়ি এসেছো ।  আর খাবারও খাও নি।।

--- এমনি ভালো লাগছে না তাই।।

জান্নাতঃ আদিবা আপুর সাথে কিছু হয়েছে??

--- ধুরর।। ওর সাথে আর কি হবে তুই যা তো।।

জান্নাতঃ যাচ্ছি।।

তারপর ঘুমিয়ে পড়লাম।। বিকালে ঘুম থেকে উঠে ছাদে গেলাম।

গিয়ে দেখলাম ছাদে আদিবা ওর বান্ধুবিদের সাথে বসে আড্ডা দিচ্ছে।।

আমি ওদের অন্যপাশে দাঁড়িয়ে আছি।।

আমাকে দেখেই আদিবার বান্ধুবিরা সবাই হাসতে লাগলো।। মনে হচ্ছে আমি কোনো এলিয়েন।।

আদিবার বান্ধুবিরা বলতে লাগলো

মিমঃ তোমার ব্যাপারে কি শুনলাম রবি??

--- কি শুনছো।।

মিমঃ তুমি নাকি আদিবাকে প্রপোজ করছো?? কিন্তু ও নাকি রাজি হয় নি।।

--- হুমমমম।। তুমি ঠিকই শুনছো।।

মিমঃ তবে রাজি না হয়ে ভালোই করেছে।। আদিবা তোমার থেকে ভালো ছেলে পাবে।।

লাবনীঃ আদিবা কত ভালো স্টুডেন্ট।। আর তুমি লাস্ট বেন্চের ছাএ।। আদিবা দেখতেও অনেক ভালো আর তুমি.....

মিমঃ থাক আর বলতে হবে না।। বেচারা কষ্ট পাবে।।

এটা বলেই সবাই এসে উঠলো।।

আর একমুহূর্ত ও সেখানে দাঁড়ালাম না।। বাসার বাইরে চলে আসলাম।।

চায়ের দোকানে বসে সিগারেট খাচ্ছি।।

এতটা অপমান এর আগে আমি কখনও হয় নি।। সবাই ঠিকই বলে সাইন্সে পড়া মেয়েদের অহংকার একটু বেশিই।।

তবে এটা ভেবে বেশি খারাপ লাগছে যে আদিবা ওদের কিছুই বললো না।।

হয়তো ও আমাকে কিছুই মনে করে না।। ৩ টা সিগারেট শেষ করলাম।। এর ভিতরে ফ্রেন্ডরাও চলে এসেছে।।

রাব্বিঃ কিরে এভাবে সিগারেট খাচ্ছিস কেনো??

--- ভালো লাগছে না তাই।।

সাকিবঃ কি হয়েছে বল তো??

-- তারপর ওদেরকে সবকিছু বললাম।।

রাব্বিঃ আমি কালকেই আদিবাকে জিগ্গেস করবো।। ও নিজেকে কি মনে করে।।

সাকিবঃ ওর বন্ধুরা তোকে  অপমান করবে আর ও কিছুই বলবে না।।

--- বাদ দে তো ওকে কিছু জিগ্গেস করতে হবে না।।

হয়তো ওর কাছে আমার কোনো মূর্ল্যই নেই।। 

যদি থাকতো তাহলে অবশ্যই ওর বান্ধুবিদের কিছু বলতো।।

আর ওর বান্ধুবিরা যা বলেছে তা ঠিকই বলেছে।।

কোথায় আদিবা আর কোথায় আমি।।  আকাশ - পাতাল ব্যবধান।।

আমি শুধু শুধুই ওকে বিরক্ত করি।।

সাকিবঃ ধুরর।। এখন এই সব কথা বাদ দে তো।। আদিবা তো তোকে সরাসরি বলে নি যে ও তোকে ভালোবাসে না।।

--- না তা বলে নি।। কিন্তু ওকে দেখে মনে হয় ও আমাকে সয্যই করতে পারে না।।

রাব্বিঃ যতদিন না পর্যন্ত আদিবা নিজ মুখে তোকে এই কথা বলবে ততদিন পর্যন্ত তুই আর এইসব কথা বলবি না।। 

আড্ডা দিতে দিতে কখন যে রাত ১০ টা বেজে গেছে খেয়ালই করি নি।।

মোবাইলটাও সাইলেন্ট করা ছিল।। আজকে বাসায় গেলে যে কি হবে আল্লাহ ই জানে।।

বুকে সাহস নিয়ে বাসার কলিং বেল বাজালাম।। কিন্তু কেউ দরজা খুলছে না।।

আবার বাজালাম তাও কেউ খুলছে না।।

৪,৫ বার বাজানোর পর ছোটবোন এসে দরজা খুললো।।

--- কিরে দরজা খুলতে এতখন লাগে কেনো??

জান্নাতঃ কে আপনি ভাইয়া?? আপনাকে তো চিনলাম না??

----- মানে?? মাথাটা কি গেছে তোর।। ওমা দেখে যাও তোমার মেয়ের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।।

মাঃ এভাবে ষাঁড়ের মত চিল্লাছিস কেনো??

--- তোমার মেয়ে আমাকে চিনতে পারছে না।।

মাঃ রাত ১০ টার সময় বাসায় আসলে কেউই তোকে চিনবো না।।

--- দুঃখিত মা।  বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিছিলাম তাই বাসায় আসতে দঁড়ি হয়ে গেছে।।

বাবাঃ প্রতিদিন তো ওই একিই কথা শুনে আসছি।। এই শেষ বার বলছি এর পর যদি তুই রাত করে বাসায় ফিরিস তাহলে তোর হাত- খরচের টাকা বন্ধ।।

আর এভাবে বাইরে ঘুরাঘুরি না করে একটু পড়ার দিকেও তো নজর দিতে পারিস। 

আদিবাকে দেখ কত ভালো স্টুডেন্ট।।  সারাদিন বই পড়ে আর তুই।।

লেখকঃ Rabi Al Islam
Copy To Facebook

Post a Comment

[blogger][facebook]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget